অমাধ্যাম অনুমান MCQ +SAQ


            অমাধ্যাম অনুমান MCQ +SAQ

অমাধ্যাম অনুমান MCQ +SAQ
অমাধ্যাম অনুমান MCQ +SAQ



১) আবর্তন কিরূপ অনুমান ?
Ans:- অমাধ্যাম অনুমান |
২) বিবর্তন কিরূপ অনুমান ?
Ans:- অমাধ্যাম অনুমান |
৩) আবর্তন কয় প্রকার ও কী কী ?
Ans:- দুই প্রকার – 1)সরল আবর্তন এবং 2) অ-সরল আবর্তন|
৪) আবর্তনীয় বচনের গুন ও আবর্তিত বচনের গুন কী হবে ?
Ans:- অভিন্ন |যেমন:- যেমন :- L.F. “A”:- সকল শিশু  হয়  সরল ব্যক্তি |  (আবর্তনীয়)
                            L.F. “I”:- কোনো কোনো সরল ব্যক্তি  হয় শিশু | (আবর্তিত)
৫) অ-সরল আবর্তনের অপর নাম কী ?
Ans:- সীমায়িত আবর্তন |
৬) “A” বচনের আবর্তনকে কিরূপ আবর্তন বলা হয় ?

Ans:- অ-সরল আবর্তন বা অসম আবর্তন |

৭)“A” বচনকে “I” বচনে আবর্তন করাকে কিরূপ আবর্তন বলা হয় ?
Ans:- অ-সরল আবর্তন বা অসম আবর্তন |
৮) “O” বচনের আবর্তন কী সম্ভব ?
Ans:- অসম্ভব |
৯) বিবর্তনের ক্ষেত্রে দুটি বচনের পরিমান কী হয় ?
Ans:- সমান হয় | যেমন :-    L.F. “A”:- সকল শিশু হয় সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তনীয়)
      সামান্য বচন        L.F. “E”:- কোনো শিশু নয় অ-সরল ব্যক্তি | (বিবর্তিত)

আবার ;          L.F. “I”:- কোনো কোনো শিশু হয় সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তনীয়)
 বিশেষ বচন           L.F. “O”:- কোনো কোনো শিশু নয় অ-সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তিত) 
১০) বিবর্তনের ক্ষেত্রে দুটি বচনের গুন কী হয় ?
Ans:- ভিন্ন হয় |যেমন :- L.F. “A”:- সকল শিশু  হয়  সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তনীয়)
                   L.F. “E”:- কোনো শিশু নয় অ-সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তিত)
আবার ;  L.F. “I”:- কোনো কোনো শিশু হয় সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তনীয়)
       L.F. “O”:- কোনো কোনো শিশু নয় অ-সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তিত) 
 
১১) অন্তরাবর্তনের উৎস কী ?
Ans:- আবর্তন ও বিবর্তনের যুগ্ম প্রয়োগকেই বলে |
১২) বস্তুগত বিবর্তন কী ধরনের প্রক্রিয়া ?
Ans:- দোষযুক্ত বিবর্তন |
১৩) বস্তুগত বিবর্তনের প্রবর্তক কে ?
Ans:-  বেইন |
১৪)বস্তুগত বিবর্তনের মূল ভিত্তি কী ?
Ans:-  বাস্তব অভিজ্ঞতা |যেমন:- L.F “A”:- আলো হয় সুখদায়ক |(বিবর্তনীয়)
                              L.F “A”:- অন্ধকার হয় কষ্টদায়ক |(বিবর্তিত)
১৫) সকল অ-S হয় অ-P , অতএব কোনো অ-S নয় P --এটি কোন যুক্তির আকার ?
Ans:- এটি বিবর্তনের আকার |
১৬) “কোনো কোনো ফুল নয় গোলাপ” – বচনটি আবর্তিত রূপ কী ?
Ans:- বচনটির আবর্তন সম্ভব নয় , কারণ এটি O বচন থাকাই |
১৭) মাধ্যম ও অমাধ্যাম অনুমানের পার্থক্য দেখাও |
Ans:-  অমাধ্যাম অনুমানে একটি মাত্র আশ্রয়বাক্য থেকে সিদ্ধান্ত নিঃসৃত হয় এবং মাধ্যম অনুমানে দুটি  আশ্রয়বাক্য থেকে সিদ্ধান্ত নিঃসৃত হয় |


১৮) আবর্তনীয় কাকে বলে ?
Ans:- আবর্তনের ক্ষেত্রে হেতুবাক্যটিকে বলা হয় আবর্তনীয় |
যেমন :- L.F. “A”:- সকল শিশু হয় সরল ব্যক্তি |  (আবর্তনীয়)
       L.F. “I”:- কোনো কোনো সরল ব্যক্তি হয় শিশু |
১৯) আবর্তিত কাকে বলে ?
Ans:-  আবর্তনের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত বচনটিকে বলা হয় আবর্তিত |
যেমন :- L.F. “A”:- সকল শিশু হয় সরল ব্যক্তি |  (আবর্তনীয়)
       L.F. “I”:- কোনো কোনো সরল ব্যক্তি হয় শিশু | (আবর্তিত)

২০) বিবর্তনীয় কাকে বলে ?
Ans:-  বিবর্তনের ক্ষেত্রে হেতুবাক্যটিকে বিবর্তনীয় বলা হয় |
যেমন :- L.F. “A”:- সকল শিশু হয় সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তনীয়)
       L.F. “E”:- কোনো শিশু নয় অ-সরল ব্যক্তি |      বিরুদ্ধ পদ

২১) বিবর্তিত কাকে বলে ?
Ans:-  বিবর্তনের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত বচনটিকে বিবর্তিত বলা হয় |
যেমন :- L.F. “A”:- সকল শিশু হয় সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তনীয়)
       L.F. “E”:- কোনো শিশু নয় অ-সরল ব্যক্তি |  (বিবর্তিত)          বিরুদ্ধ পদ

২২) বিরুদ্ধপদ কী ?
 Ans:-  একটি পদ ও তার পরিপূরক পদকে একত্রে বিরুদ্ধ পদ বলা হয় |
যেমন :- সাধু (পদ)    অ-সাধু (পরিপূরক) ; অ-মানুষ (পদ)     মানুষ (পরিপূরক)
২৩) সমবিবর্তন কী ?
Ans:-  তর্কবাক্য >>বিবর্তন >> আবর্তন >> বিবর্তন = সমবিবর্তন |
যেমন :- পশু মানুষ হয় না | (বাক্য)
L.F. “E” :- কোনো পশু নয় মানুষ | (তর্কবাক্য)

L.F. “A” :- সকল পশু হয় অ-মানুষ | (বিবর্তিত)/(বিবর্তন)

L.F. “I” :- কোনো কোনো অ-মানুষ হয় পশু |(আবর্তিত)/(আবর্তন)

L.F. “O” :- কোনো কোনো অ-মানুষ নয় অ-পশু | (বিবর্তিত)/(বিবর্তন)

২৪) বিবর্তনের বিধেয় পদটি কোন পদ হয় ?
Ans:-  বিরুদ্ধ পদ হয় |
২৫) সমবিবর্তন কর :- সব বাক্য বচন নয় |
নিয়ম একনজরে দেখে নাও :-

এই PDF File করতে পারো  
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url