• Breaking News

    LOGIC SEARCH ENGINE

    AGE CALCULATOR || বয়সের হিসেব

    বাক্যকে বচনে পরিনত করার নিয়ম কি?

    Thursday, November 15, 2018

    Philosophy (পদের ব্যাপ্যতা কাকে বলে?)

    পদের ব্যাপ্যতা কাকে বলে? ব্যাপ্যতার  নিয়মগুলি কী কী ? উদাহরণ সহ নিরপেক্ষ বচনগুলি আলোচনা কর।
                                                                                                                   [ ২+২+৪]
    by Soumyadip Mandal 

    উত্তর :-
    ব্যাপ্যতা :- কোনো পদ যদি তার দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির সকল সদস্যকে নির্দেশ করে , তাহলে সেই পদটিকে ব্যাপ্য হয়। পদটি যদি তার দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির সমগ্র সদস্যকে না বুঝিয়ে তার একটি অংশকে মাত্রকে নির্দেশ  করে , তাহলে পদটি অব্যাপ্য।  আর পদের এই ধর্মকে  বলা হয় ব্যাপ্যতা।

    ব্যাপ্যতার নিয়মগুলি হল:- ১) সামান্য বচন উদ্দেশ্য পদকে করে।
                                           ২) নঞর্থক  বচন বিধেয় পদকে ব্যাপ্য করে।

    নিরপেক্ষ বচনসমূহের পদের ব্যাপ্যতা :- L .F  "A" :- সকল মানুষ হয় মরণশীল। 
                                                          "A" বচনের উদ্দেশ্য পদ "মানুষ " ব্যাপ্য, কেন-না  "মানুষ " পদের দ্বারা                                                                 নির্দেশিত শ্রেণীর সকল সদস্যই মরণশীল। কিন্তু "A" বচনের বিধেয় পদ "মরণশীল" ব্যাপ্য নয় , কেন-না "মরণশীল" পদের দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির মধ্যে মানুষ ছাড়াও অন্যান্য অনেক প্রাণী আছে ,কিন্তু তাদের সবাইকে নির্দেশ না করে "মরণশীল" শ্রেণির একটা অংশ "মরণশীল" কে নির্দেশ করায় "মরণশীল" এই পদটি ব্যাপ্য নয়।

                                                          L .F  "E " :- কোনো মানুষ নয় অমর। 
                                                       "E" বচনের উদ্দেশ্য পদ "মানুষ " ও বিধেয় পদ "অমর " উভয়েই  ব্যাপ্য। উদ্দেশ্য পদ "মানুষ " ব্যাপ্য  যেহেতু  "মানুষ " পদের দ্বারা নির্দেশিত  শ্রেণির অন্তর্গত কোনো সদস্যই অমর  নয়।
                               বিধেয় "অমর " ব্যাপ্য , কেন-না বিধেয় পদ "অমর" সামগ্রিকভাবে "মানুষ " থেকে বিচ্ছিন্ন , "অমর" পদের কোনো অংশের সঙ্গেই মানুষ  জাতির কোনো সম্পর্ক নেই।

                                                                   L .F  "I " :- কোনো কোনো মানুষ হয় সৎ  ব্যক্তি। 
                                                               "I" বচনের কোনো পদই ব্যাপ্য নয়, কেন-না এক্ষেত্রে "মানুষ " পদের দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির একটা অংশমাত্রের সঙ্গে বিধেয় "সৎ " কে স্বীকার করা হয়েছে বলে উদ্দেশ্য পদ "মানুষ" ব্যাপ্য  নয়। আবার বিধেয় পদ "সৎ" ব্যাপ্য নয়  এই জন্য যে "সৎ" পদের দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির একটি অংশ সম্পর্কে "মানুষ" কে স্বীকার করা হয়েছে, সমগ্র অংশ সম্পর্কে  নয়।


                                                             
                                                                 L .F  "O " :- কোনো কোনো মানুষ নয় সৎ  ব্যক্তি। 
                                                               "O" বচনের উদ্দেশ্য পদ "মানুষ" ব্যাপ্য নয়, কেন-না "মানুষ" পদের দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির একটা অংশ সম্পর্কে সততাকে অশ্বিকার করা হয়েছে। "O" বচনের বিধেয় পদ "সৎ" ব্যক্তি ব্যাপ্য দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির সঙ্গে "মানুষ" পদের দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির কোনো সদস্যেরই সম্পর্কে নেই। "সৎ" ব্যক্তি দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণির সমগ্র সদস্যকে সামগ্রিকভাবে "মানুষ" পদের দ্বারা নির্দেশিত শ্রেণী সম্পর্কে অস্বীকার করা হয়েছে।

    Philosophy Suggestion 2019

    1 comment:


    Contact Us

    Email:- soumyadipmandal9@gmail.com