বচনের ধারণা | knowledge of Proposition

বচনের ধারণা।

বচনের ধারণা।





বাক্য কি?

উত্তর:- চিন্তার প্রকাশিত রূপকেই বলা হয় বাক্য।

যেমন:-
আমি ভাত খাই।



বচন কি?

উত্তর:- বাক্যের পরিশ্রুত ও তর্কবিজ্ঞানসম্মত রূপকেই বলা হয় বচন।

যেমন:-
তর্কবিজ্ঞানসম্মত আকার / L.F. "A" : সকল কবি হয় ভাবুক।



পরিমাণক কি?

উত্তর:- বচনের যে অংশটি তার পরিমাণকে নির্দেশ করে, তাকেই বলা হয় পরিমাণক।

যেমন:- L.F. "A" : সকল কবি হয় ভাবুক।



উদ্দেশ্য কি?

উত্তর:- বচনে যার সম্পর্কে কোনো কিছু বলা হয় তাকেই বলা হয় উদ্দেশ্য।

যেমন:-
L.F. "A" : সকল কবি হয় ভাবুক।



বিধেয় কি?

উত্তর:- কোনো বচনে উদ্দেশ্য সম্পর্কে যা বলা হয়, তাকেই বলা হয় বিধেয়।

যেমন:-
L.F. "A" : সকল কবি হয় ভাবুক



সংযোজক কি?

উত্তর:- বাক্যের ক্ষেত্রে আমরা যাকে ক্রিয়া পদ বলে থাকি, তাকেই বলা হয় সংযোজক। এটা একটা অংশ যা উদ্দেশ্য ও বিধেয়কে সংযুক্ত করে।কিন্তু এটা একটা শব্দ, পদ নয়।

যেমন:-
L.F. "A" : সকল কবি হয় ভাবুক।



ঘোষকবাক্য কি?

উত্তর:- যে বচনে উদ্দেশ্য সম্পর্কে বিধেয়তে কোনো কিছু সদর্থক বা নঞর্থকভাবে ঘোষণা করা হয়, তাকেই বলা হয় ঘোষকবাক্য।

যেমন:-
ঘোষকবাক্য হল:- কোনো পাখি পশু নয়।
L.F. "E" : কোনো পাখি নয় পশু।



প্রশ্নসূচক বা জিজ্ঞাসাসূচক বাক্য কি?

উত্তর:- যে বাক্যে উদ্দেশ্য সম্পর্কে বিধেয়তে কিছু জিজ্ঞাসার সূচনা করা হয় ,সেই বাক্যকেই বলা হয় জিজ্ঞাসাসূচক বা প্রশ্নসূচক বাক্য।

যেমন:-
কোন মা নিজের সন্তানকে ভালবাসেন না?
L.F. "A" : সকল মা হন এমন যাঁরা নিজের সন্তানকে ভালবাসেন।



নির্দেশসূচক বাক্য কি?

উত্তর:- যে বাক্যে উদ্দেশ্য পদটির মাধ্যমে বিধেয়তে কিছু নির্দেশ দেওয়া হয়, তাকেই বলা হয় নির্দেশসূচক বাক্য।

যেমন:-
ধূমপান এই ঘরে অনুমোদিত নয়।
L.F. "E" : এই ঘর নয় এমন স্থান যেখানে ধূমপান অনুমোদিত।



পদ কি?

উত্তর:- যে শব্দ বা শব্দসমষ্টি অন্য কোনো শব্দের সাহায্য ছাড়া কোনো নিরপেক্ষ বচনের উদ্দেশ্য পদ বা বিধেয় পদরূপে ব্যবহৃত হতে পারে, সেই শব্দ বা শব্দসমষ্টিকে পদ বলে।
L.F. "E" : কোনো পাখি নয় পশু
পদ হল- i) পাখি এবং ii) পশু



ব্যক্তার্থ কি?

উত্তর:- কোনো পদ একই অর্থে যে বস্তু বা বস্তুসমূহকে নির্দেশ করে, সেই বস্তু বা বস্তুসমূহকে সেই পদের ব্যক্তার্থ বলে।

যেমন:-
L.F "A" : সকল মানুষ হয় মরণশীল জীব।
L.F "I" : কোনো কোনো ছাত্র হয় বুদ্ধিমান।
এখানে মানুষ পদটির ব্যক্তার্থ হল সকল মানুষ
এর মানে সকল মানুষের সমষ্টি হল মানুষ পদের ব্যক্তার্থ।
আবার ছাত্র পদটির ব্যক্তার্থ হল কোনো কোনো ছাত্র
এর মানে কিছু সংখ্যক ছাত্রে সমষ্টি হল ছাত্র পদের ব্যক্তার্থ।
আংশিক ব্যক্তার্থ গ্রহণ করছে না সম্পূর্ণ ব্যক্তার্থকে গ্রহণ করছে সেটা বোঝার জন্য পরিমানক দিকে খেয়াল রাখতে হবে।



অঙ্গ কি?

উত্তর:- যে বচন দিয়ে যৌগিক বচন গঠিত হয়, তাকে বলা হয় যৌগিক বচনের অঙ্গ।

যেমন:-
রাম কালো এবং রহিম ফর্সা
এই বচনের দুটি অঙ্গ আছে। যথা-
i) রাম হয় কালো।
ii) রহিম হয় ফর্সা।



নিষেধক বচন কি?

উত্তর:- নয়,এমন নয় যে,প্রভৃতি যোজক দিয়ে যে যৌগিক বচন গঠিত হয়, তাকে বলে নিষেধক বা নেতিমূলক বচন।
যেমন:-
এমন নয় যে রাম একজন ডাক্তার।






knowledge of Propositon

knowledge of proposition in philosophy

যদি তোমাদের এগুলো ভালো লাগে তাহলে কোমান্ড কর আর শেয়ার কর। তাহলে আমি আরও লিখব তোমাদের জন্য ।


ধন্যবাদ
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url